ঢাকা সোমবার, অক্টোবর ১৪, ২০১৯

রিয়াল মাদ্রিদ মানেই ক্যাসমিরো ও দশ জন

Spread the love

লেভান্তের বিপক্ষে রিয়াল মাদ্রিদের ম্যাচের ৫৯ মিনিটে ক্যাসমিরোকে তুলে নেন রিয়াল মাদ্রিদ কোচ জিনেদিন জিদান। কারও বুঝতে সমস্যা হয়নি কেন জিদান ক্যাসমিরোকে তুলে নিয়েছিল।

রেডিও মার্কাতে তখনই বলা হয়, জিদান এখন থেকেই পিএসজি ম্যাচের কথা চিন্তা করছে। আর সেই ম্যাচের আগে যাতে ক্যাসমিরো কোন ইনজুরিতে না পড়ে সেজন্যই তাকে তুলে নিলেন জিদান।

লুকা মড্রিচ ইনজুরি। ইনজুরিতে আছে ফেডে ভালভার্দে। ইসকোও আছেন ইনজুরিতে। ক্যাসমিরোও এই ম্যাচের আগে কেবল একবারই অনুশীলন করেছিল। তাই জিদান জানেন, ক্যাসমিরোকে নিয়ে কোন রকম ঝুঁকি নেয়া যাবে না।

কারণ, বর্তমানে রিয়াল মাদ্রিদের অর্ধেকটাই কেবল ক্যাসমিরো, বাকি অর্ধেক একাদশের বাকি ১০ জন। এই কথাটি একটু উদ্ভট দেখায়। কিন্তু রিয়াল মাদ্রিদের দিকে তাকালে মনে হবে সেটাই সত্য।

লেভান্তের বিপক্ষে শেষ ৩০ মিনিটের দিকে তাকালেই স্পষ্ট হয়ে যায় ক্যাসমিরো থাকা এবং না থাকার পার্থক্যটা। ক্যাসমিরো উঠে যাওয়ার পর আক্রমন বেড়ে যায় লেভান্তের। রিয়ালে ডি বক্সের আশে পাশে তাদের আনাগোনা বেড়ে যায়, এমনিক সমতায় ফেরার খুব কাছে পৌছে গিয়েছিল তারা।

ডিফেন্সিভ কারণে ক্যাসমিরো রিয়াল মাদ্রিদের সবচেয়ে প্রয়োজনীয় একটি নাম। বাকি চার ডিফেন্ডার থেকেও সে বেশি কার্যকর এবং বাকিদের থেকে তার ধারাবাহিকতাও বেশি।

ডিফেন্সের কথা বাদ দিলে আসে আক্রমনের কথা। সেখানেও ক্যাসমিরো অনন্য। গোল করায় ক্রুস এবং মড্রিচের থেকেও সেরা সে। এক কথায় রিয়াল মাদ্রিদে তার কোন রিপ্লেসই নেই।