বিশ্বকাপ জেতার সব অস্ত্র ব্রাজিলের রয়েছে, প্রয়োজন শুধু সঠিক ব্যবহারের

বিশ্বকাপ জেতার জন্য ভালো প্লেয়ারের প্রয়োজন, দল হিসেবে তাদের ভালো খেলার প্রয়োজন। কিন্তু যদি ভালো প্লেয়ার না থাকে তাহলে দল হিসেবেও ভালো খেলার সম্ভাবনা অনেকটাই কম থাকে।

যে দলে ভালো প্লেয়ার যত বেশি থাকবে সেই দলের বিশ্বকাপ জেতার সম্ভাবনা তত বেশি থাকবে। অবশ্যই এরমধ্যে ভাগ্যটাও জড়িত। কিন্তু তারপরও প্লেয়ার যদি ভালো না হয় তাহলে তো আশা করাও যাবে না।

তবে শুধু একাদশের ১১ জন ভালো হলেই হবে এমনটা নয়, সঙ্গে বদলি খেলোয়াড়দেরও ভালো হতে হয়। এর সবচেয়ে সুন্দর উদাহরণ হতে পারে ২০১৪ বিশ্বকাপে জার্মানীর গোৎজে। বদলি হয়ে নেমে তিনিই গোলটি করেছিলেন ফাইনালে।

আর এই সবকিছুই যেন রয়েছে ল্যাতিন আমেরিকার জায়ান্ট ব্রাজিলের। কি নেই তাদের? গোলপোস্ট থেকে শুরু করে আক্রমন ভাগ থেকে বেঞ্চ পর্যন্ত, সব প্রতিভাবান প্লেয়ারদের নিয়ে সাঁজানো।

লেফট উইংয়ে আছেন বর্তমান বিশ্বের অন্যতম সেরা দুই প্রতিভা ভিনিসিয়াস এবং মার্তিনেল্লি। তাদের জন্য নেইমারকে এখন টিটে ব্যবহার করছেন অ্যাটাকিং মিড কিংবা নাম্বার নাইন হিসেবে। এতে ব্রাজিল আরও বেশি সুফলও পাচ্ছে। সঙ্গে রাইট উইংয়ে আছেন অ্যান্থনি এবং রাফিনহার মত প্লেয়ার।

এছাড়া রয়েছে রিয়ালে দুর্দান্ত খেলা রোদ্রিগো, জেসুস, কুনহা, রিচার্লিশনের মত প্লেয়ার। প্রত্যেকেই নিজ নিজ ক্লাবে আলো ছড়িয়েছেন এবং ছড়াচ্ছেন।

মাঝমাঠে আছে ক্যাসমিরো, কৌতিনহো, ব্রুনো গুইমারেস, পাকুয়েতা, ফ্যাবিনহোর মত প্লেয়াররা। যেকোন দলেরই এমন মিডফিল্ড পাওয়া স্বপ্নের মত।

ডিফেন্সে রয়েছে সিলভা, অ্যারানা, সান্দ্রো, দানিলো, মিলিটাও, মার্কুইনহোস, গ্যাব্রিয়েলের মত প্লেয়ার। গোলপোস্টে আছে অ্যালিসন এবং এডারসন যারা বর্তমান বিশ্বের সেরা দুজন গোলকিপার।

সব মিলিয়ে এই ব্রাজিল দলটি একেবারে স্বয়ংসম্পূর্ণ বলাই যায়। তাই বলা যায়, বিশ্বকাপ জেতার জন্য এবারের দলটির সকল অস্ত্র রয়েছে। এখন শুধু তাদের সঠিক সময়ে, সঠিক জায়গায় ব্যবহার করতে হবে যা কোচের কাজ। সেটা করতে পারলেই হয়তো বিশ্বকাপ জেতা হয়ে যাবে ব্রাজিলের।

Related posts