একটি কারণেই মেসিকে যেতে দেয়নি বার্তামেউ

ক্যারিয়ারের শুরু থেকেই বার্সালোনাতে খেলছেন লিওনেল মেসি। আজকের মেসি হয়েছেন তিনি বার্সাতেই। বার্সার ইতিহাসের সেরা খেলোয়াড়ও তিনি। সর্বোচ্চ গোলদাতাও তিনি। জিতিয়েছেন অনেক শিরোপা। নিজেও জিতেছেন অনেক শিরোপা।

এমন একজন লিজেন্ডকে কি কোন ক্লাব ছেড়ে দিতে চাইবে? বার্সালোনাও চায়নি। আর সেটা তো একেবারেই চায়নি বার্তামেউ।

ক্লাবের স্পোর্টিং প্রজেক্ট নিয়ে বেশ বিরক্ত ছিলেন লিওনেল মেসি। সভাপতির উপরও বিরক্ত ছিলেন। তাইতো মেসি গত মৌসুমের শেষেই ক্লাব ছাড়তে চেয়েছিলেন।

মেসির দাবী ছিল চুক্তিতে আছে যে এক মৌসুম চুক্তি থাকলেও সে ইচ্ছামত ফ্রিতে চলে যেতে পারবে। কিন্তু বার্সা দাবী করে যে সেটা জুন মাসের কথা বলা হয়েছিল। মেসি দাবী করে যে বলা হয়েছিল মৌসুম শেষ। তাই করোনার কারণে মৌসুম আগষ্টে শেষ হওয়ায় তিনি এখনই যেতে পারবেন।

তবে বার্তামেউ রাজি না হলে মেসি যেতে পারতেন আদালতে। কিন্তু প্রিয় ক্লাবকে মেসি আদালতে তুলতে চাননি। সেজন্য এক মৌসুম থাকার সিদ্ধান্ত নেন।

কিন্তু প্রশ্নটা হচ্ছে, মেসি এত চেষ্টা করার পরও কেন বার্তামেউ তাকে যেতে দিল না? উত্তরটা অন্য জায়গায়। লিওনেল মেসি বার্সালোনা ছাড়লে সেটা বার্তামেউর জন্য সবচেয়ে খারাপ হত। বার্সার ইতিহাসের সেরা খেলোয়াড়কে ক্লাব ছাড়া করেছে বার্তামেউ এমন ইতিহাস তখন রচিত হয়ে যেত।

চারদিকে তখন সমালোচনা হত বার্তামেউকে নিয়েই। হয়তো সেই সমালোচনা চলতেও থাকত। সেটা যাতে না হয় সেজন্যই বার্তামেউ মেসিকে ছাড়েনি।

Related posts

Leave a Comment