রোনালদোর ফিরে আসা নির্ভর করছে একজনের সিদ্ধান্তের উপর

২০১৮ সালে ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো রিয়াল মাদ্রিদ ছেড়ে চলে যান। নতুন চ্যালেঞ্জ নিয়ে জুভেন্টাসে পাড়ি জমান তিনি। কিন্তু পরপর তিনটি মৌসুমে চ্যাম্পিয়নস লিগে ব্যর্থতার পর রোনালদোর পুনরায় রিয়াল মাদ্রিদেই ফিরে আসার গুঞ্জন শুরু হয়।

এই গুঞ্জন ধামা চাপা দেয়ার চেষ্টা করেছে রোনালদো এবং জুভেন্টাস। রোনালদো জানিয়েছিলেন যে, এখনো তার জুভেন্টাসের হয়ে অনেক শিরোপা জেতা বাকি।

জুভেন্টাসের পক্ষ থেকেও জানানো হয় যে, ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদোকে বিক্রি করার কোন পরিকল্পনাই নেই তাদের। রোনালদো আগামী মৌসুমেও থাকবে।

কিন্তু কে শোনে কার কথা? স্প্যানিশ ফুটবল পাড়ায় জোর কদমে এগিয়ে যাচ্ছে এই গুঞ্জন। ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো তার কাছের মানুষদের নাকি ইতোমধ্যেই জানিয়েছে যে, সে পুনরায় রিয়ালে ফিরতে আগ্রহী।

কিন্তু চলে যাওয়া প্লেয়ার রিয়াল কি পুনরায় কিনবে? বিশেষ করে পেরেজের ব্যবসায়ীক চিন্তাধারায় কি এই পরিকল্পনা আসবে? স্প্যানিশ গনমাধ্যম মার্কা জানিয়েছে, রোনালদোর ফিরে আসা নির্ভর করছে কেবল মাত্র পেরেজের উপর।

যদি পেরেজ চিন্তা করে রোনালদোকে ফেরালে ভালো হবে তাহলেই দুয়ার খুলতে পারে রোনালদোর জন্য। কিন্তু রোনালদো হয়তো আর ২ বা ৩ বছর সার্ভিস দিবে। এরপর কি হবে?

সেই ভবিষ্যত চিন্তা করেই পেরেজ এখন ছুটছে হালান্ড এবং এমবাপ্পের দিকে। এই দুই তারকাকেই আবার কিনতে হলে বিশাল অংকের টাকা প্রয়োজন। আবার এই দুজনের মধ্যে এমবাপ্পেকে নুন্যতম ২০ মিলিয়ন ইউরো বেতন দিতে হবে।

এতকিছুর পর ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদোকে কি কিনতে রাজি হবে পেরেজ?

Related posts

Leave a Comment