শ্বাষরুদ্ধকর জয়ে ফাইনালে কলকাতা

ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগ আইপিএলের আজকের দ্বিতীয় কোয়ালিফায়ার ম্যাচে আজকে কলকাতা নাইট রাইডার্সের কাছে হেরেছে দিল্লি ক্যাপিটালস। ম্যাচে কলকাতা নাইট রাইডার্সের কাছে ৩ উইকেটে হেরেছে দিল্লি ক্যাপিটালস।

প্রথম কোয়ালিফায়ার ম্যাচে চেন্নাইর কাছে হেরেছিল দিল্লি। তবে দ্বিতীয় সুযোগ হিসেবে পেয়েছিল কলকাতার বিপক্ষে খেলার সুযোগ। কিন্তু সেটাও কাজে লাগাতে পারলো না তারা। হেরেছে ৩ উইকেটে।

আজকের ম্যাচে প্রথমে ব্যাটিং করতে নেমে কলকাতার বোলারদের সামনে মাত্র ১৩৫ রান করে দিল্লি ক্যাপিটালস। দলের পক্ষে ৩৯ বলে ৩৬ রান করেন শিখর ধাওয়ান। ২৭ বলে ৩০ রান করেন শ্রেয়াস আয়ার। এছাড়া আর কেউই বড় রান করতে পারেনি।

কলকাতার পক্ষে ৪ ওভারে ২৬ রান দিয়ে ২টি উইকেট শিকার করেন বরুন চক্রবর্তি। ১টি করে উইকেট শিকার করেন ফার্গুসন এবং শিভাম মাভি।

জবাব দিতে নেমে ওপেনিং জুটিতেই জয়ের পথ তৈরি হয়ে যায় কলকাতার। বেনকাটেশ এবং গিল মিলে ৯৬ রানের ওপেনিং জুটি গড়েন। ভেনকাটেস ৪১ বলে ৫৫ রান করে আউট হলে ভাঙে এই জুটি।

এরপর অবশ্য নিতিশ রানা ১৩, গিল ৪৬ এবং কার্তিক ০ রান করে আউট হলে কিছুটা চাপে পরে কলকাতা। ১২৬ রানের মধ্যে চতুর্থ উইকেট পতনের পর মাঠে নামেন মরগান। তিনি নেমে ৩টি বল নষ্ট করে কোন রান না করেই আউট হয়ে চাপ আরেকটু বাড়ান।

শেষ ওভারে জয়ের জন্য ৬ বলে ৭ রান দরকার হয় কলকাতার। ব্যাটিংয়ে তখন সদ্য নামা সাকিব এবং আগে থেকেই থাকা ত্রিপাঠি। প্রথম বলে ১ রান নেন ত্রিপাঠি। কিন্তু পরের বলে সাকিব রান নিতে পারেননি। তৃতীয় বলে সাকিব উল্টো আউটই হয়ে যান।

চতুর্থ বলে ব্যাটিংয়ে নেমেই আউট হন সুনীল নারিন। ছক্কা মারতে গিয়ে বাউন্ডারির কাছে ক্যাচ দিয়ে আউট হন নারিন। শেষ দুই বলে তখন প্রয়োজন ৬ রান। ব্যাটিংয়ে নামেন লুকি ফার্গুসন। তবে ব্যাটিং প্রান্তে তখন ত্রিপাঠি। পঞ্চম বলটিকে তিনি পাঠিয়ে দেন হাওয়ায় ভাসিয়ে বাউন্ডারির বাইরে। সেই সঙ্গে এক বল হাতে রেখে শ্বাসরুদ্ধর জয় পায় কলকাতা।

Related posts