প্রতারণার কারণে নতুন বিপদে পাকিস্তান ক্রিকেট দল

ব্রডশিট এলএলসি নামের একটি কোম্পানি ৩৩ মিলিয়ন ডলারেরও বেশি অর্থ পায় পাকিস্তান সরকার এবং ন্যাশনাল অ্যাকাউন্টেবিলিটি ব্যুরোর (এনএবি) কাছে; কিন্তু নির্ধারিত সময়ের মধ্যে সেই অর্থ ফেরত দিতে ব্যর্থ হয় পাকিস্তান।

ব্রডশিট এলএলসি নামের একটি কোম্পানি ৩৩ মিলিয়ন ডলারেরও বেশি অর্থ পায় পাকিস্তান সরকার এবং ন্যাশনাল অ্যাকাউন্টেবিলিটি ব্যুরোর (এনএবি) কাছে; কিন্তু নির্ধারিত সময়ের মধ্যে সেই অর্থ ফেরত দিতে ব্যর্থ হয় পাকিস্তান।

এরপর পাকিস্তান ও এনএবি’র বিরুদ্ধে মামলা করে জয়ী হয় কোম্পানিটি এবং পাকিস্তান জাতীয় ক্রিকেট দলের সমস্ত সম্পত্তি বাজেয়াপ্ত করার নির্দেশ দেয় আদালত। তখনকার মতো সেই কোম্পানি কোনো পদক্ষেপ নেয়নি ঠিকই। তবে এবার ইংল্যান্ড সফরে আসা পাকিস্তান ক্রিকেট দেলের ড্রেসিংরুমে ‘স্ট্রাইক’ চালাতে পারে কোম্পানিটি। অন্তত এটাই এখনকার খবর।

রীতিমতো হুমকির সুরেই ব্রডশিট এলএলসি জানিয়েছে, ‘পাকিস্তান দল এখন ব্রিটেনে। ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে টেস্টের প্রস্তুতি নিচ্ছে। বকেয়া না মেটানোর দায়ে দলের সম্পত্তি বাজেয়াপ্ত করা হতে পারে। শুধু তাই নয়, লন্ডনে পাক দূতাবাস বিল্ডিং এবং হাই কমিশনারের বাড়িও বাজেয়াপ্ত করার কথা ভাবা হচ্ছে। নিউইয়র্কে রুজভেল্ট হোটেলটিও রয়েছে কোম্পানির নিশানায়।

Related posts

Leave a Comment