বরিশাল নিয়ে অসন্তুষ্ট তামিম

গত ১২ নভেম্বর হওয়া প্লেয়ার্স ড্রাফট থেকে আসন্ন বঙ্গবন্ধু টি-টোয়েন্টি কাপের জন্য দল গুছিয়েছে অংশগ্রহণকারী দলগুলো। যেখানে ১ কোটি ১৩ লাখ টাকা খরচ করে নিজেদের ১৬ খেলোয়াড়কে নিয়েছে ফরচুন বরিশাল। সবচেয়ে বেশি ১৫ লাখ টাকার ‘এ’ গ্রেড থেকে তারা নিয়েছে তামিম ইকবালকে, অধিনায়কত্বও দেয়া হয়েছে তাকে।

এছাড়া দলে রয়েছেন তাসকিন আহমেদ, আফিফ হোসেন ধ্রুব, মেহেদি হাসান মিরাজ, ইরফান শুক্কুর, আমিনুল ইসলাম বিপ্লবদের মতো তরুণ তারকারা। এর বাইরে তারুণ্যের প্রতিনিধি হিসেবে আছেন তৌহিদ হৃদয়, সাইফ হাসান, সুমন খান, মাহিদুল অঙ্কন, তানভীর ইসলাম, পারভেজ ইমনরা। কিন্তু সে অর্থে অভিজ্ঞ ক্রিকেটার নেই দলটিতে।

তামিম ছাড়া ঘরোয়া বা আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে দীর্ঘদিন খেলার অভিজ্ঞতা রয়েছে শুধুমাত্র কামরুম ইসলাম রাব্বি ও সোহরাওয়ার্দি শুভ। যাদের সাম্প্রতিক পারফরম্যান্স খুব একটা আশা জাগানিয়া নয়। দলে তারুণ্যের ঝলকানি থাকলেও অভিজ্ঞতার কমতি থাকায় পুরো স্কোয়াড নিয়ে খুব একটা সন্তুষ্ট নন অধিনায়ক তামিম ইকবাল।

অনুশীলনের ফাঁকে সংবাদমাধ্যমের সঙ্গে আলাপে প্লেয়ার্স ড্রাফটে নিজেদের ভুলের কথা বলেছেন তামিম। তার ভাষ্য, ‘কোনো সন্দেহ নেই যে, আমরা ড্রাফটে কিছু ভুল করেছি। ড্রাফটে কিছু ভুল করেছি দেখেই কথা উঠছে।’

তবে এতেই হাল ছেড়ে দিচ্ছেন না বরিশাল অধিনায়ক। তিনি আশায় আছেন কারও কাছ থেকে প্রত্যাশাতীত পারফরম্যান্স পাওয়া, ‘একইসঙ্গে এটাও বুঝতে হবে যে, ক্রিকেট অনিশ্চয়তার খেলা। এখন হয়তো আমার দলে এমন কিছু প্লেয়ার আছে, যাদের আমরা কেউ বড় করে দেখছি না। কিন্তু তাদের সবারই দারুণ টুর্নামেন্ট কাটতে পারে। যেকোনো কিছু হতে পারে। আমি তেমন কিছুর আশায়ই থাকব।’

এ সময় প্রেসিডেন্টস কাপের উদাহরণ টেনে তামিম বলেন, ‘আপনি প্রেসিডেন্টস কাপে দেখেন। দুই-তিনজন প্লেয়ারকে আমরা কেউ আশা করিনি যে, ওরা এত ভালো খেলবে। পরে কিন্তু তাদের নিয়েই সবচেয়ে বেশি আলোচনা ছিল। আমি আশা করি, লাইমলাইটের বাইরে থাকা কেউ অমন পারফরম্যান্স করবে।’

Related posts

Leave a Comment