পিএসজির ৪০ মিলিয়ন ইউরো বেতনের প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান ভিনিসিয়াসের

রিয়াল মাদ্রিদের তরুণ তারকা ভিনিসিয়াস জুনিয়র ২০২১-২২ মৌসুমটা পুরোপুরি নিজের করে নিয়েছিলেন। একেবারে রং তুলি দিয়ে নিজের ইচ্ছামত সাজিয়েছিলেন মৌসুমটি।

আগের তিন মৌসুমে ব্যাপক সমালোচনার শিকার হওয়া ভিনিসিয়াস জুনিয়র গত মৌসুমটিতে নিজেকে ইউরোপের অন্যতম সেরা তারকা হিসেবে প্রতিষ্ঠিত করেছেন।

রিয়াল মাদ্রিদের গত মৌসুমের যে সফলতা সেটা সম্ভব হয়েছে তার দুর্দান্ত নৈপুন্যের ফলেই। মৌসুম জুড়ে ব্যাপক ভাবে আলো ছড়ানো ভিনিসিয়াস সরাসরি ৪৩টি গোলে জড়িত থেকেছেন। রিয়াল মাদ্রিদ জিতেছে লা লিগা শিরোপা এবং চ্যাম্পিয়নস লিগ শিরোপা। চ্যাম্পিয়নস লিগের ফাইনালে আবার ভিনিসিয়াসের গোলেই এসেছে জয়।

উড়তে থাকা ভিনিসিয়াস যখন সমালোচনায় বিদ্ধ হচ্ছিলেন তখন থেকেই তার উপর নজর ছিল পিএসজির। একাধিক বার চেষ্টা করেছিল তারা ভিনিসিয়াসকে কেনার জন্য। কিন্তু সফল হয়নি।

ভিনিসিয়াস নিজেও রিয়াল মাদ্রিদ ছাড়তে চায়নি, আবার রিয়াল মাদ্রিদ সভাপতি পেরেজ একক সিদ্ধান্তে ভিনিসিয়াসকে বিক্রির বাইরে রেখেছিলেন। সবকিছুর প্রতিদান ভিনিসিয়াস দিয়ে দিলেন গত মৌসুমটিতে।

সমালোচনার মধ্যে থাকা যে ভিনিসিয়াসকে পছন্দ ছিল পিএসজির, উড়ন্ত ফর্মের সেই ভিনিসিয়াসকে আরও বেশি করে পেতে চাইবে সেটাই স্বাভাবিক। পিএসজি তাই চেষ্টাও করেছিল।

তারা গত মার্চে ভিনিসিয়াসকে বলেছিল রিয়াল মাদ্রিদের সঙ্গে চুক্তি নবায়ন না করতে। যদি ভিনিসিয়াস চুক্তি নবায়ন না করে তাহলে পিএসজি তাকে কেনার জন্য আসবে এবং তার বেতন দিবে ৪০ মিলিয়ন ইউরো। একই সঙ্গে থাকবে বিশাল অংকের বোনাস। সেই সঙ্গে থাকব কাতারে ব্যবসা করার সুযোগ।

ভিনিসিয়াস পিএসজির এই বিশাল অফারে মোটেও বিচলিত হননি। দৃঢ় ভাবে সেটা প্রত্যাখ্যান করেছেন এবং জানিয়েছেন রিয়াল মাদ্রিদেই খেলতে চান তিনি। হতে চান রিয়াল মাদ্রিদের লিজেন্ড।

Related posts