ব্রাজিলকে হারিয়ে ২৮ বছর পর শিরোপা উৎসব করল আর্জেন্টিনা

কোপা আমেরিকার এবারের আসরে হাইভোল্টেজ ফাইনালে মুখোমুখি হয়েছিল ল্যাতিন আমেরিকার দুই সেরা দল ব্রাজিল এবং আর্জেন্টিনা। ম্যাচে ব্রাজিলকে হারিয়ে শিরোপা জেতার গৌরব অর্জন করে আর্জেন্টিনা।

হাইভোল্টেজ এই ম্যাচে ১৩ মিনিটের সময় নেইমারের সামনে সুযোগ এসেছিল দলকে এগিয়ে নেয়ার জন্য। কিন্তু নেইমার ঠিকমত শট নিতে না পারলে সুযোগ হাতছাড়া হয় ব্রাজিলের।

কিন্তু ২১ মিনিটের সময় অ্যাঞ্জেল ডি মারিয়ার গোলে এগিয়ে যায় আর্জেন্টিনা। রোদ্রিগো ডি পলের দুর্দান্ত এক অ্যাসিস্ট থেকে ফাকা মাঠে বল পেয়ে যায় ডি মারিয়া। সেখান থেকে ব্রাজিল গোলকিপারকে পরাস্ত করতে কোন সমস্যাই হয়নি আর্জেন্টাইন তারকার।

ম্যাচের ২৯ মিনিটে আরও একটি সুযোগ আসে আর্জেন্টিনার সামনে। এবারও ডি মারিয়া শট নিয়েছিলেন। তবে সামনে থাকা ব্রাজিলের এক প্লেয়ারের গায়ে লেগে বলটি আটকে যায়।

প্রথমার্ধে ব্রাজিলও দু-একটি আক্রমন করেছিল। কিন্তু সেগুলোর পূর্ণতা না পেলে প্রথমার্ধে ১-০ গোলে পিছিয়ে থাকে স্বাগতিকরা।

বিরতির পরপরই গোলের দেখা পায় ব্রাজিল। কিন্তু রিচার্লিশনের সেই গোলটি অফসাইডের কারণে বাতিল হয়ে যায়।

দুই মিনিট পর আরেকটি সহজ সুযোগ আসে ব্রাজিলের সামনে। কিন্তু সময় নিয়েও রিচার্লিশন শট মারেন গোলকিপারের বরাবর। ফলে পিছিয়েই থাকতে হয় ব্রাজিলকে।

প্রথমার্ধের তুলনায় দ্বিতীয়ার্ধে বেশ আক্রমনাত্মক খেলে ব্রাজিল। কিন্তু আর্জেন্টিনার সংঘবদ্ধ খেলার বিপরীতে তারা তেমন সুবিধাই করতে পারেনি।

ম্যাচের ৮৭ মিনিটে আর্জেন্টিনার গোলকিপার এমিলিয়ানো মার্তিনেজের দুর্দান্ত এক সেভ হতাশ করে ব্রাজিলকে। পাল্টা আক্রমনে রীতিমত ফাকা পোস্ট পেয়ে যায় মেসি। কিন্তু ফাকা পোস্ট পেয়েও গোল দিতে পারেনি এই তারকা। এডারসন বল নিয়ন্ত্রনে নিয়ে যায়।

Related posts