এমবাপ্পের নেইমারকে বিক্রির শর্ত কি তাহলে সত্য!

ফ্রান্সের তারকা কিলিয়ান এমবাপ্পের সঙ্গে পিএসজির চুক্তি নবায়নের পরপরই গুঞ্জন উঠেছিল যে, এমবাপ্পের চুক্তি নবায়নের অন্যতম শর্ত ছিল নেইমারকে বিক্রি করতে হবে। যদিও এমবাপ্পে সেই অভিযোগ অস্বীকার করেছিলেন।

কিন্তু এমবাপ্পে সেই অভিযোগ অস্বীকার করলেও নাটকের দৃশ্যপট কিন্তু সেদিকেই এগিয়ে যাচ্ছে। আগামী মৌসুমে নেইমারের ক্লাব ছাড়ার সম্ভাবনা দিন দিন বেড়ে যাচ্ছে।

নেইমার নিজে যদিও জানিয়েছেন যে, তিনি ক্লাবেই থাকতে চান এবং তাকে চলে যাওয়ার কথা কেউ কিছু বলেনি। কিন্তু পিএসজি সভাপতি নাসের আল খেলাইফি যে বক্তব্য দিয়েছেন তাতে ভিন্ন কিছুর ইঙ্গিত পাওয়া যায়।

খেলাইফির কাছে প্রশ্ন করা হয়েছিল যে আগামী মৌসুমের পরিকল্পনায় নেইমার আছে কিনা। সেখানে খেলাইফি বলেছেন, “জনসম্মুখে কথা বলার বিষয় এগুলো নয়। কিছু প্লেয়ার যাবে, কিছু প্লেয়ার আসবে। এগুলো ক্লাবের অভ্যন্তরীন বিষয়। অনেকেই বিভিন্ন পরিস্থিতির সুযোগ নিয়েছে। কিন্তু এখন সেসবের দিন শেষ।”

বলা হয় নেইমার পিএসজির কাছ থেকে অনেক সুবিধা নিয়েছেন যা অন্য কোন প্লেয়ার পাননি। ম্যাচ না খেলে পার্টিতে যাওয়া, আবার পার্টি করার কারণে ম্যাচ মিস করা, হুটহাট কোথাও চলে যাওয়া, অনুশীলনে দেরী করা সহ আরও অনেক সুবিধা নিয়েছেন। নেইমারকে খুশি রাখতে গিয়ে পিএসজিও বাধা দেয়নি। তাহলে কি এগুলোর দিকেই ইঙ্গিত করেছেন খেলাইফি?

এমবাপ্পের সঙ্গে চুক্তির আগেও পরিস্থিতি ছিল অন্যরকম। তখনও নেইমারের চলে যাওয়ার গুঞ্জন ছিল। কিন্তু সেই সময় পিএসজির পক্ষ থেকে জানানো হয়েছিল যে নেইমার পিএসজির প্রজেক্টের অংশ। কিন্তু হঠাৎ সেই স্বর পাল্টে যাওয়ায় অনেকেই ধরে নিয়েছে যে নেইমারের ক্লাব ছাড়তেই হচ্ছে এবার।

এমবাপ্পের চুক্তিতে বড় অংকের অর্থ খসাতে হয়েছে পিএসজিকে। এই চুক্তির আগে পিএসজির সবচেয়ে বেশি বেতনের প্লেয়ার ছিল নেইমার। তাই নিজেদের খরচ কমাতে এখন নেইমারকেই বিক্রি করতে চাচ্ছে ক্লাবটি।

Related posts