একটি দুর্বলতা ব্রাজিলকে অনেক ভোগাচ্ছে

বিশ্বের ইতিহাসে একমাত্র দল হিসেবে ৫টি বিশ্বকাপ জিতেছে ব্রাজিল। ইতিহাসে সবচেয়ে বেশী লিজেন্ডদের জন্মও এই জায়গাতে। লিজেন্ডদের আতুরঘর বলা হয় ব্রাজিলকে।

কিন্তু ব্রাজিলের আগের সেই জৌলশ যেন এখন আর নেই। যে ব্রাজিলের হয়ে আলো ছড়িয়েছেন পেলে, সক্রেটিস, জিকো, রোমারিও, কার্লোস, কাফু, রিভালদো, কাকা, জুনিনহো, দিনহো, রোনালদো, কাকাদের মত তারকারা, সেই ব্রাজিল যেন এখন অনেকটাই ঘুমিয়ে।

বর্তমান ব্রাজিল দলটিতেও তারকাদের অভাব নেই। কিন্তু এক নেইমার, সিলভা, ক্যাসমিরো, অ্যালিসনদের মত নির্ভযোগ্য তারকা যেন দলটিতেই আর নেই।

অনেকের বয়স হয়েছে। মার্সেলো, সিলভা, দানি আলভেসদের বয়স হয়েছে। সেখানে নতুন নতুন তারকা উঠে আসতেছে। ফিলিপ, লোদি, আর্খার, ফ্রেড, পাকুয়েতা, এমারসনরা উঠে আসতেছে। কিন্তু একটি পজিশনে যেন যোগ্য তারকার জন্য মাথা খুটে মরছে ব্রাজিল।

এই পজিশনটি হল স্ট্রাইকার। রোনালদো, রোমারিওরা যে পজিশনে রাজ করেছেন, সারা বিশ্ব কাঁপিয়েছেন সেই পজিশনে এখন নেই কোন ভয়ানক স্ট্রাইকার।

বর্তমানে ব্রাজিল দলের এই পজিশনে খেলছেন ফিরমিনো যার গোল স্ট্যাটাস অত বেশি সমৃদ্ধ নয়। গ্যাব্রিয়েল জেসুসও তেমন কোন ভয়ানক স্ট্রাইকার নন। এছাড়া আছেন রিচার্লিশন কিংবা ডগলাস কস্তারা। কিন্তু কেউই তারা স্বভাবজাত নাম্বার নাইন নয়।

একজন নাম্বার নাইনের অভাব ব্রাজিল হারে হারে টের পেয়েছিল বেলজিয়ামের বিপক্ষে ২০১৮ বিশ্বকাপে। এখনো বড় দলগুলোর বিপক্ষে খেলতে গেলে ব্রাজিলের স্ট্রাইকারের অভাবটা ফুটে উঠছে বেশ ভালো ভাবেই।

তাই ভবিষ্যতে কোন বড় টুর্নামেন্টে ভালো করতে হলে ব্রাজিলকে এই পজিশনে একজন ভয়ানক স্ট্রাইকার খুঁজে বেড় করতে হবে সেটা বলাই যায়।

Related posts

Leave a Comment