এই বয়সেও ব্রাজিলের সেরা রাইটব্যাক দানি আলভেস

ব্রাজিলের ফুটবল ইতিহাস অনেক বেশি সমৃদ্ধ। এতটাই সমৃদ্ধ যে, ব্রাজিলের মত সমৃদ্ধ ইতিহাস আর কোন দেশেরই নেই।

কি নেই এই দলটির ইতিহাসে? লিজেন্ডদের আতুর ঘর বলা হয় এই দেশটিকেই। অসংখ্য লিজেন্ডের এই দেশে বর্তমানে উঠে আসছে অনেক প্রতিভাবান ফুটবলার।

কিন্তু একটি জায়গায় যেন বড্ড অভাব তাদের। সেই জায়গাটির নাম হচ্ছে রাইটব্যাক। ব্রাজিলের রাইটব্যাক পজিশনে যেন কোন যোগ্য তারকাই উঠে আসছে না।

মার্সেলো চলে যাওয়ার পর ব্রাজিলের লেফটব্যাক সামলেছে ফিলিপ লুইস। তারপর রেনান লোদির মত প্লেয়ারও আছে। কিন্তু রাইটব্যাক পজিশনে দানি আলভেসের যোগ্য উত্তরসূরী নেই কেউই।

এবারের কোপা আমেরিকাতে ব্রাজিলের রাইটব্যাক সামলেছিলেন দানিলো। আলভেসের ইনজুরির কারণেই মুলত একাদশে সুযোগ পান তিনি। কিন্তু চিরাচরিত ব্রাজিলের ফুলব্যাকদের যে দৃশ্য সেটা চোখে পড়েনি দানিলোর ক্ষেত্রে। আক্রমন আর ডিফেন্সের যে ভারসাম্য সেটা করতে গিয়ে অনেকবারই পরাস্ত হয়েছিলেন তিনি।

কিন্তু দানি আলভেস আবার সুযোগ পেয়েছেন অলিম্পিকে। সেখানে ব্রাজিলের অন্যতম সেরা পারফর্মারই তিনি। ৩৯ বছর বয়সে এসেও সমান তালে আক্রমনে উঠছেন এবং ডিফেন্স সামলাচ্ছেন। আর পারফর্মেন্স দিয়ে বুঝিয়ে দিয়েছেন যে, অনেক তরুণ রাইটব্যাকদের চেয়েও বর্তমানে ব্রাজিলের সেরা রাইটব্যাক তিনিই।

Related posts