জাতীয় দলে নিষিদ্ধ হতে পারে মেসি ক্যাসমিরোরা

স্প্যানিশ ক্লাব রিয়াল মাদ্রিদে খেলেন এক ঝাক বিশ্বের সেরা সেরা তারকারা। একই কথা প্রযোজ্য আরও দুই স্প্যানিশ ক্লাব বার্সালোনা এবং অ্যাতলেটিকো মাদ্রিদের ক্ষেত্রেও। শুধু কি তাই? ম্যানসিটি, ম্যানইউ, চেলসি, আর্সেনাল, লিভারপুল, টটেনহামে খেলেন বিশ্বের সেরা সেরা তারকারা। একবার ভাবুন তো- এই সব ক্লাবে খেলা তারকারা যদি জাতীয় দল থেকে নিষিদ্ধ হয় তাহলে কেমন হতে পারে? একবার ভাবুন- মেসি, লাউটারোরা নিষিদ্ধ হয়ে গেল আর্জেন্টিনাতে! ক্যাসমিরো, ভিনিসিয়াস, মিলিটাও, অ্যালিসন, ফ্যাবিনহো, ফিরমিনো, জেসুস, এডারসন, রোদ্রিগোরা নিষিদ্ধ হয়ে গেল ব্রাজিলে! ভারানে, পিকে, রামোস, বুসকেটস, আনসু ফাতিরা নিষিদ্ধ হয়ে গেল স্পেনে? হ্যা, এমনটাই হতে পারে…

Read More

সেমিফাইনালে ব্রাজিলের ১২, আর্জেন্টিনার ৪

উয়েফা চ্যাম্পিয়নস লিগের সেমিফাইনালে উঠেছে চেলসি, ম্যানসিটি, রিয়াল মাদ্রিদ এবং পিএসজি। চ্যাম্পিয়নস লিগের কোয়ার্টার ফাইনালে চেলসি হারিয়েছে পোর্তোকে, পিএসজি হারিয়েছে বায়ার্নকে, রিয়াল হারিয়েছে লিভারপুলকে এবং ম্যানসিটি হারিয়েছে বুরুশিয়া ডর্টমুন্ডকে। চ্যাম্পিয়নস লিগের সেমিফাইনালে মুখোমুখি হবে চেলসি বনাম রিয়াল মাদ্রিদ এবং পিএসজি বনাম ম্যানসিটি। তবে ইউরোপের শ্রেষ্ঠত্বের এই আসরে ব্রাজিলিয়ান তারকাদের জয়জয়কার। চ্যাম্পিয়নস লিগে নন ইউরোপিয়ান দেশগুলোর মধ্যে ব্রাজিলের প্লেয়ার সবচেয়ে বেশি। চারটি দলে সব মিলিয়ে ১২জন ব্রাজিলিয়ান তারকা রয়েছে। অন্যদিকে আর্জেন্টিনার রয়েছে মাত্র ৪ জন। ব্রাজিলিয়ান তারকাদের মধ্যে সবচেয়ে বেশি পাঁচজন আছে রিয়াল মাদ্রিদে। ম্যানসিটিতে আছেন তিনজন। পিএসজিতে আছে ৩জন এবং…

Read More

প্রথমে বার্সা, এরপর বায়ার্ন, তারপর কি

উয়েফা চ্যাম্পিয়নস লিগে এবার পিএসজির সামনে যেন মাথা নত করতে ব্যস্ত জায়ান্ট দলগুলো। গ্রুপ পর্বে প্রথম তিন ম্যাচে নড়বড়ে পিএসজিকে দেখা গেলেও পরের তিনটি ম্যাচেই প্রতিপক্ষকে উড়িয়ে জয় পেয়েছিল তারা। এই দলগুলোর মধ্যে আবার ছিল ম্যানচেষ্টার ইউনাইটেডের মত দলও। এরপর দ্বিতীয় রাউন্ডে তারা সামনে পেল স্প্যানিশ জায়ান্ট বার্সালোনাকে। কিন্তু বার্সাকেও পাত্তাই দেয়নি তারা। বার্সার বিপক্ষে ম্যাচ তো প্রথম লেগেই শেষ করে দিয়েছিল পিএসজি। বার্সাকে হারানোর পর সামনে পরে বর্তমান চ্যাম্পিয়ন এবং ইউরোপের অন্যতম ভয়ানক দল বায়ার্ন মিউনিখ। কিন্তু সেই বায়ার্নও পেরে উঠেনি পিএসজির সঙ্গে। দুই লেগ মিলিয়ে ঠিকই পিএসজির কাছে…

Read More

সময় এখন রামোসের বিপরীতে

একটা সময় মনে হত রিয়াল মাদ্রিদের ডিফেন্স মানেই ছিল সার্জিও রামোস। মনে হবেই না কেন? এখনো তার সামনে দিয়ে বল নিয়ে যাওয়াটা স্ট্রাইকারদের জন্য যুদ্ধ জয়ের মত। এখনো তাকে ভয় পায় না এমন স্ট্রাইকারের সংখ্যাটা খুবই সামান্য। তাইতো এত বয়স হলেও এখনো রিয়ালের সেরা ডিফেন্ডারের তকমাটা তার গায়েই। তাই রামোসের চুক্তির মেয়াদ যখন শেষ হতে চলছিল তখন রিয়াল শিবিরে হায় হায় রব উঠেছিল। কেননা রামোস চলে গেলে রিয়ালের ডিফেন্সের কি হবে? ক্লাবও তাই খুব করেই চাচ্ছিলো রামোস যেন রিয়ালেই থাকে। তাকে দুই বছরের নতুন চুক্তির অফারও করেছিল তারা। সাধারণত রিয়াল…

Read More

নেইমার নিজেই চায়না সেরা হতে!

ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো এবং লিওনেল মেসির পর বিশ্বের সেরা প্লেয়ার হিসেবে অনেকেই নেইমারের ছায়া দেখছিলেন। কিন্তু বাস্তবে হচ্ছে সেটার উল্টোটা। একের পর এক ইনজুরি আর নিষেধাজ্ঞার কারণে প্রত্যাশিত পর্যায়ে পৌছতে পারছেনা নেইমার। কেবল নেইমার নয়, সাবেক ব্রাজিলিয়ান তারকা রোনালদিনহোর অবস্থাও অনেকটাই এমন ছিল। তার মধ্যেও সবররকম যোগ্যতা থাকলেও সেরা হতে পারেনি। এমনটাই মন্তব্য সাবেক বার্সা তারকা লুডোভিক গুইলির। নেইমার এবং রোনালদিনহোর সামনে সুযোগ ছিল ১০ বা তার বেশি বছরের জন্য সেরা হওয়ার। কিন্তু তারা নিজেরাই চায়নি সেরা হতে এমনটাই মন্তব্য সাবেক এই বার্সা তারকার। তিনি বলেন, “ক্যারিয়ারের দিক থেকে আমি নেইমার…

Read More

নেইমারের শিক্ষা হয় না

আরও একবার দলের কঠিন মুহূর্তে গিয়ে লাল কার্ড দেখলেন নেইমার জুনিয়র। গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচে লিলের বিপক্ষে ১-০ গোলে পিএসজির হারের ম্যাচে লাল কার্ড দেখেছেন তিনি। লিগ ওয়ানে শিরোপা রেসে লিল এখন সবার উপরে আছে। পিএসজি থেকে তিন পয়েন্ট এগিয়ে আছে তারা। এমন গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচেই এখন নেইমারকে হারিয়েছে দলটি। নেইমারের যেন শিক্ষা হচ্ছে না। একের পর এক লাল কার্ড দেখার পরও শিক্ষা হচ্ছে না তার। সর্বশেষ ১৪ ম্যাচে ৩টি লাল কার্ড দেখেছেন নেইমার। সব মিলিয়ে ক্যারিয়ারে মোট ১১টি লাল কার্ড দেখেছেন তিনি। নেইমার লাল কার্ড দেখেছেন একেবারেই নিজের দোষে, মেজাজ হারিয়ে। অথচ…

Read More

শেষ ১৪ গোলের ১০টি লুক্সেমবার্গ-লিথুনিয়ার বিপক্ষে

২০১৮ বিশ্বকাপের পর পর্তুগাল দুটি ম্যাচ খেলেছিল ক্রোয়েশিয়া এবং স্কটল্যান্ডের বিপক্ষে। ক্রোয়েশিয়ার বিপক্ষে পর্তুগাল ড্র করলেও জিতেছিল স্কটল্যান্ডের বিপক্ষে। কিন্তু এই দুটি ম্যাচে বিশ্রামে ছিলেন রোনালদো। এরপর শুরু হয় ইউরো এর বাছাই পর্ব। সেই থেকে এখন পর্যন্ত ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো জাতীয় দলে মোট গোল করেছেন ১৪টি যার মধ্যে ১০টি এসেছে কেবল লিখুনিয়া এবং লুক্সেমবার্গের বিপক্ষে। রোনালদো লিথুনিয়ার বিপক্ষেই করেন সাত গোল, মাত্র দুই ম্যাচেই। এক ম্যাচে চার গোল এবং অন্য ম্যাচে করেন তিন গোল। লুক্সেমবার্গের বিপক্ষে তিন ম্যাচে তিন গোল করেছেন তিনি। বাকি চারটি গোল এসেছে যথাক্রমে- সুইডেনের বিপক্ষে জোড়া গোল,…

Read More

গোলহীন ১৮০ মিনিট রোনালদো, এমবাপ্পে, হালান্ডের

ইউরোপে খেলা তারকাদের মধ্যে বর্তমানে সবচেয়ে আলোচিত হচ্ছেন কিলিয়ান এমবাপ্পে এবং আরলিং হালান্ড। দুই প্লেয়ারই তরুণ এবং ভয়ানক ফিনিশার হওয়ায় বড় বড় ক্লাবগুলো তাদের পেছনে ছুটতে তৈরি। ক্লাব ফুটবলে ভুরি ভুরি গোল করা এই দুই তারকার আন্তর্জাতিক ম্যাচের পারফর্মেন্সের দিকে তাই নজর ছিল সবার। কিন্তু সেখানে হতাশ করেছেন দুজনেই। অন্যদিকে ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো তো ছুটছেন রেকর্ডের পেছনেই। আর মাত্র কয়েকটি গোল করলে জাতীয় দলের হয়ে সর্বকালের সর্বোচ্চ গোলদাতার আসনে বসবেন তিনি। তাই তার দিকেও নজর ছিল সবার। হতাশ করেছেন তিনিও। পর্তুগাল দুটি ম্যাচ খেলেছে এবং দুটি ম্যাচেই জিতেছে। কিন্তু রোনালদো ছিলেন…

Read More

রোনালদোর ফিরে আসা নির্ভর করছে একজনের সিদ্ধান্তের উপর

২০১৮ সালে ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো রিয়াল মাদ্রিদ ছেড়ে চলে যান। নতুন চ্যালেঞ্জ নিয়ে জুভেন্টাসে পাড়ি জমান তিনি। কিন্তু পরপর তিনটি মৌসুমে চ্যাম্পিয়নস লিগে ব্যর্থতার পর রোনালদোর পুনরায় রিয়াল মাদ্রিদেই ফিরে আসার গুঞ্জন শুরু হয়। এই গুঞ্জন ধামা চাপা দেয়ার চেষ্টা করেছে রোনালদো এবং জুভেন্টাস। রোনালদো জানিয়েছিলেন যে, এখনো তার জুভেন্টাসের হয়ে অনেক শিরোপা জেতা বাকি। জুভেন্টাসের পক্ষ থেকেও জানানো হয় যে, ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদোকে বিক্রি করার কোন পরিকল্পনাই নেই তাদের। রোনালদো আগামী মৌসুমেও থাকবে। কিন্তু কে শোনে কার কথা? স্প্যানিশ ফুটবল পাড়ায় জোর কদমে এগিয়ে যাচ্ছে এই গুঞ্জন। ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো তার কাছের…

Read More

বায়ার্নকে হারিয়ে নিজেদের বড় দল প্রমানের সুযোগ পিএসজির

উয়েফা চ্যাম্পিয়নস লিগের গত আসরের ফাইনাল খেলেছিল পিএসজি। কিন্তু ফাইনালে বায়ার্ন মিউনিখের কাছে হেরে শূন্য হাতে বিদায় নিতে হয় দলটিকে। এবারও সেই একই প্রতিপক্ষের বিপক্ষে লড়াই করতে হবে তাদের। তবে এবার লড়াইটা হবে কোয়ার্টার ফাইনালে। আর এই ম্যাচে বায়ার্নকে হারিয়ে নিজেদের বড় দল প্রমান করার সুযোগ রয়েছে পিএসজি এমনটাই মন্তব্য ফুটবল বিশেষজ্ঞ হাবিব বেয়ের। গত বছর পিএসজি ফাইনাল খেলার পথে বুরুশিয়া, আটালান্টা, লিপজিগের বিপক্ষে জয় পেয়েছিল। সেই তুলনায় এবার তাদের প্রতিপক্ষগুলো আরও বড়। গ্রুপ পর্বেই ম্যানইউর মত দল ছিল, সঙ্গে লিপজিগ তো ছিলই। দ্বিতীয় রাউন্ডে বার্সাকে নাস্তানাবূদ করেছে তারা। এখন…

Read More