নাপোলির বিপক্ষে ম্যাচে বার্সার পজিটিভ নেগেটিভ দিকগুলো নিয়ে লিখেছেন উবায়দুল্লাহ

নাপোলিকে উড়িয়ে দিয়ে উয়েফা চ্যাম্পিয়নস লিগের কোয়ার্টার ফাইনাল নিশ্চিত করেছে বার্সালোনা। আজ মহাগুরুত্বপূর্ণ দ্বিতীয় লেগে নাপোলিকে ৩-১ গোলে উড়িয়ে দিয়েছে মেসিরা। নাপোলির মাঠে দুই দলের প্রথম লেগের ম্যাচটি ড্র হয়েছিল ১-১ গোলে। যার কারণে বার্সার মাটিতে আজকের দ্বিতীয় লেগের ম্যাচটি বেশ গুরুত্বপূর্ণ ছিল উভয় দলের জন্যই। যারা জিতবে তারাই যাবে কোয়ার্টারে। আর এমন ম্যাচে দুর্দান্ত খেলে জয় নিয়ে কোয়ার্টার ফাইনাল নিশ্চিত করে বার্সা। এই ম্যাচে বার্সালোনা দুর্দান্ত খেললেও কিছু পজিটিভ এবং নেগেটিভ দিক ছিল। সেগুলো নিয়েই এই আলোচনা.. **নেগেটিভ বিষয়গুলো.. * প্রথম যে জিনিসটা চোখে পড়ার মতো ছিলো, তা হলো…

Read More

জিদানরা এক মৌসুম বা এক ম্যাচের জন্য নয়

শুরুটা হয়েছিলো অপছন্দের একজন খেলোয়াড় হিসাবে। ১৯৯৮ সালের বিশ্বকাপে সৌদি আরবের একজন খেলোয়াড়কে লাথি মেরে লাল কার্ড দেখে যেদিন মাঠ ছেড়ে চলে গিয়েছিলেন ঠিক সেদিনই আমি জিজু ‘কে চিনি। এরপর অবশ্য চারদিকের তার নেতৃত্বগুণ দেখে আমি তার ভক্ত হয়ে গিয়েছিলাম। মাদ্রিদের যত মিডফিল্ডার দেখেছি তার মধ্যে জিজু ও ব্যাকহাম জুটি ছিলো আমার অনেক প্রিয়। ব্যাকহামের জ্যামিতিক পাস আর জিজুর উড়ন্ত অসাধারন গোল এখনও চোখে ভাসে। জিনেদিন জিদান, জন্ম ২৩ শে জুন ১৯৭২ সাল। ডাক নাম “জিজু” ফ্রেঞ্চ সাবেক পেশাদার ফুটবলার এবং রিয়াল মাদ্রিদের বর্তমান ম্যানেজার। বহু ফুটবল ভক্তের কাছে জিদান…

Read More

এরকম করলে বার্সাতে খেলোয়াড় আসতে চাইবে তো!

সাবেক বার্সালোনা ও মায়োর্কা ডিফেন্ডার সম্প্রতি একটা কথা বলেছেন। তিনি বলেছেন, আর্থার এবং বার্সার মধ্যে যা হলো তাতে কোন পক্ষেরই লাভ হয়নি। বিষয়টা আরেকটু ভালোভাবে দুই পক্ষই মিটিয়ে ফেলতে পারত। আসলেও তাই। বার্সালোনা শেষ কিছু সময়ে আর্থারের সঙ্গে যে ব্যবহার করেছে সেটা ক্লাবের জন্য নেতিবাচক, ইতিবাচক নয়। এই ঘটনা থেকে অন্য যেকোন ফুটবলার শিক্ষা নিতে পারে। স্প্যানিশ ক্লাব বার্সালোনা বর্তমান বিশ্বের সেরা ক্লাবগুলোর একটি এবং এই ক্লাবে খেলার স্বপ্ন দেখে হাজার হাজার ফুটবলার। সারা বিশ্বে কোটি কোটি ভক্তও রয়েছে তাদের। সেজন্য তাদের থেকে ওইরকম আচরণই প্রত্যাশা করে সবাই। ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো…

Read More

আশা রিয়ালের, আশা ব্রাজিলের

ফুটবল ইতিহাসের সবচেয়ে বেশি লিজেন্ডদের জন্ম হয়েছে ব্রাজিলে। তাদের স্কিলে মুগ্ধ হয়েছে সারা বিশ্বের কোটি কোটি ভক্ত। পাঁচবার বিশ্বকাপ জিতেছে দলটি যা ফুটবল ইতিহাসে যেকোন দলের মধ্যে সর্বোচ্চ। বর্তমান ফুটবলে দাপট ইউরোপিয়ানদের। ল্যাতিন আমেরিকার দল বিশেষ করে শিরোপার সম্ভাবনাময়ী দল ব্রাজিল ও আর্জেন্টিনা দুটি দলই শেষ কয়েকটি বিশ্বকাপে ইউরোপিয়ান দলগুলোর কাছেই হেরেছিল। কিন্তু একটা সময় ছিল যখন ব্রাজিলিয়ানদের সাম্বার ছন্দের সঙ্গে তাল মেলানোটাই কষ্টের ছিল ইউরোপিয়ানদের। সবচেয়ে মজার বিষয় হল এই পাঁচবার যে বিশ্বকাপ জিতেছে তারা তাতে সবচেয়ে বেশি অবদান ছিল ব্রাজিলিয়ান লিগে খেলা প্লেয়ারদেরই। ব্রাজিলিয়ান তারকা পেলেকে জাতীয় সম্পদ…

Read More

ইনজুরিতে পড়তে পারত নেইমার

২০১৭ সালে বার্সালোনা ছেড়ে পিএসজিতে যাওয়ার পর কয়েকটি বড় ইনজুরিতে পড়েন নেইমার। প্রথম দুই মৌসুমে তার অর্ধেকটা সময় কেটেছে মাঠের বাহিরে। মিস করেছেন গুরুত্বপূর্ণ অনেক গুলো ম্যাচ। চলতি মৌসুমেও ইনজুরির সঙ্গে লড়াই করেছেন নেইমার। সেই কারণেই তার ম্যাচের সংখ্যাটা এই মোসুমে এখনো ২০ এর কোটাতেই আছে। সেই নেইমার নিজেকে ভাগ্যবান মনে করতেই পারেন এই জন্য যে, গতরাতে এতিয়েন্সের বিপক্ষে ম্যাচে ইনজুরিতে পড়েননি। পুরো ম্যাচ জুড়েই ছিল এতিয়েন্স তারকাদের মারাত্মক ফাউলের নিদর্শন। ম্যাচের শুরুতেই এক তরফা ধাক্কাধাক্কি-হাতাহাতি। কিলিয়ান এমবাপ্পেকে মারাত্মক এক ফাউল করে মাটিতে শুইয়ে দেয় এতিয়েন্সের এক তারকা। রেফারি প্রথমে…

Read More

মেসি নেইমারকে নিয়ে উভয় সংকটে বার্সা

বার্সাকে আবার সঠিক পথে ফেরানোর জন্য এবং মেসিকে সাহায্য করার জন্য নেইমার জুনিয়রকে বার্সাতে আনার জন্য অনেকেই অনুরোধ করেছিলেন। অনেকেই নেইমারকে বার্সাতে দেখতে চেয়েছিলেন বার্সার হারানো জৌলশ ফেরানোর জন্য। বার্সার সাবেক সভাপতি সান্দ্রো রোসেল বলেছিলেন, আমি যদি আবার বার্সার সভাপতি হতাম তাহলে নেইমারকেই কিনতাম। বার্সার সাবেক খেলোয়াড় জাভিও বলেছিলেন বার্সার এখন নেইমারকে প্রয়োজন। দানি আলভেসও একই কথা বলেছেন। একই কথা বলেছেন রিভালদো। তবে বার্সালোনা সভাপতি বার্তামেউ যেন ওসব কথা কানে তুলতে নারাজ। তিনি নেইমারকে বার্সালোনায় আনতে চান না এটাই নাকি তার মনের ইচ্ছা। গত মৌসুমে বার্সালোনা নেইমারকে ফেরানোর জন্য চেষ্টা…

Read More

রোগাক্রান্ত বার্সার সেরা হওয়ার উপায় নিয়ে লিখলেন একরাম খালেদ

সবাই যখন ফেরারি টাইপের ব্র্যান্ডের পেছনে ছুটে তখন কেউ একজন পুরোনো দিনের বাষ্পচালিত গোল্ডসওর্দি গার্নি গাড়ি চালাবে বলে স্বপ্ন দেখে। সৃষ্টির শুরু থেকে কত আধিপত্যের শাসন দেখেছে এই মহাবিশ্ব! যেমন করে হারানো আধিপত্যবাধ দ্বিতীয়বার খুজে পায়নি কোনো জাতি, তেমনই চাইলেই আঠারো শতকের সেই গোল্ডসওর্দি গার্নি গাড়ি পাওয়া যাবেনা, কিংবা পাওয়া গেলেও সেটা অকার্যকর অবস্থায় সাজিয়ে রাখা হয়েছে জাদুঘরে। মঙ্গোলীয়দের আধিপত্যের অবসান ঘটে চেঙ্গিস খানের নিজ বংশধরদের কুকীর্তি ও অন্তর্দন্দের জন্যে। অটোম্যান সাম্রাজ্যের অবসান ঘটে সুলতানদের আরাম আয়েশি জীবনের পাশাপাশি তলোয়ারের ধার ও ব্রেনে জং ধরার কারণে। ঠিক তেমনই ক্লাব ফুটবলে…

Read More

আলোর পথে পা বাড়ালো রিয়াল: নওশাদ মুন্না

রাতের পরে যেমন দিন আসে, তেমনি দিনের পরে আসে রাত। রাত-দিন আসবেই। ইহা চিরন্তন সত্য। সত্য কখনো পরিবর্তিত হয় না। এটাই সত্যের সবচেয়ে বড় গুণ। রাত যতো বড়ই হোক না কেন, একসময় ভোরের আলো পুব আকাশে উঁকি মারবেই। তবে, রাত কখনো দীর্ঘস্থায়ী কখনোবা ক্ষণস্থায়ী হয়ে থাকে। রাতের পরিধি বাড়ুক অথবা কমুক, দিনের দেখা মিলবেই। অন্ধকারকে পাশ কাটিয়ে আলোর দেখা জগৎ পাবেই। সেই সাথে হবে নতুন স্বপ্নের শুরু। সকলে দিগন্তের পানে পা বাড়াবে। হবে আলোর পথযাত্রী। আলো-অন্ধকার অথবা দিন-রাত, যেটাই বলি না কেনো, রিয়াল মাদ্রিদের সাথে তা আষ্টেপৃষ্ঠে জড়িয়ে আছে। কখনো…

Read More

ডিফেন্স আর মিডফিল্ড দিয়ে লিগ জিতে গেল রিয়াল

রিয়াল মাদ্রিদের চলতি মৌসুমে সর্বোচ্চ গোলদাতা খেলোয়াড় হচ্ছেন করিম বেনজামা। দ্বিতীয় সর্বোচ্চ গোল করেছেন সার্জিও রামোস। বেনজামা স্ট্রাইকার হলেও রামোস একজন ডিফেন্ডার। আর এভাবেই দলের উপর থেকে নিচ পর্যন্ত তারকাদের দুর্দান্ত নৈপুন্যে লা লিগা জিতেনিল রিয়াল মাদ্রিদ। ২০১৮ সালে ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো রিয়াল মাদ্রিদ ছেড়ে চলে যান। মৌসুমে ৪০ গোলের নিশ্চয়তা দেয়া একটা প্লেয়ার যখন কোন দল ছেড়ে চলে যায় তখন তার অভাব পূরণ করাটা সহজ হয় না। সেটা হয়েছে রিয়াল মাদ্রিদের ক্ষেত্রেও। রোনালদো চলে যাওয়ার তার স্থানে যে শূন্যতা তৈরি হয়েছে সেটা আজও পূরণ করতে পারেনি রিয়াল মাদ্রিদ। কিন্তু তাতে…

Read More

শিরোপা জিততে রোনালদোকে প্রয়োজন হয়না জিদানের

২০১৮ সালে ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদো রিয়াল মাদ্রিদ ছেড়ে চলে যান। মৌসুমে ৪০ গোলের নিশ্চয়তা দেয়া একটা প্লেয়ার যখন কোন দল ছেড়ে চলে যায় তখন তার অভাব পূরণ করাটা সহজ হয় না। সেটা হয়েছে রিয়াল মাদ্রিদের ক্ষেত্রেও। রোনালদো চলে যাওয়ার তার স্থানে যে শূন্যতা তৈরি হয়েছে সেটা আজও পূরণ করতে পারেনি রিয়াল মাদ্রিদ। কিন্তু তাতে কি? এক রোনালদোর জন্য তো আর রিয়াল মাদ্রিদ থেমে থাকবে না। থেমে থাকেও নি। কারণ তাদের রোনালদো না থাকলেও ছিল জিদান। রোনালদোর সঙ্গে সঙ্গে জিদানও রিয়াল ছেড়েছিল। কিন্তু রিয়াল মাদ্রিদ আর জিদানের ছাড়াছাড়ি বেশি দিন স্থায়ী হয়নি।…

Read More